ছাতকে পুলিশকে মারধরের ঘটনায় পৌর কাউন্সিলরসহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

কালনী ভিউকালনী ভিউ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৩২ PM, ০৬ জুলাই ২০২১

কালনী ভিউ ডেস্ক::
সুনামগঞ্জের ছাতকে বন বিভাগের জমি থেকে বালু উত্তোলনে বাধা দিতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলায় ইনচার্জসহ নৌ পুলিশের ছয় সদস্য আহত হওয়ার ঘটনায় এক পৌর কাউন্সিলরসহ ২৬ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার ছাতক থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন হামলায় আহত ছাতক নৌ পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান। ছাতক পৌরসভার কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী, ব্যবসায়ী হাজী বুলবুল, সাদমান ও শাওন সহ ২৬ জনকে আসামি করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

পুলিশ আরো জানায়, রবিবার সন্ধ্যার পর ছাতকের চেলা নদীতে বন বিভাগের সরকারি ভূমি থেকে অবৈধ বোমা মেশিন (ড্রেজার) দিয়ে বালু উত্তোলন করছিল কয়েশ লোক।

খবর পেয়ে রাত ৮টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে চারটি নৌকা জব্দ করে নৌ পুলিশের একটি দল।
ফেরার পথে পৌর কাউন্সিলর তাপসের নির্দেশে ও ব্যবসায়ী হাজী বুলবুল, আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে ৪৪-৫০ জনের সশস্ত্র একটি দল নৌকাযোগে এসে পুলিশের উপর হামলা চালায়। তারা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পুলিশকে বেধড়ক পিটিয়ে পানিতে ফেলে দেয়।

এসময় পুলিশের কাছ থেকে ১১টি মোবাইল ফোন, ৪টি হাতকড়া এবং জব্দ করা মালামাল ও ফাইলপত্র লুট করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে হামলাকারীরা।

পরে স্থানীয়রা আহত পুশিল সদস্যদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান। হামলায় আহত হন, ছাতক নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মজুর আলম, এসআই হাবিবুর রহমান, এএসআই সবুজ হোসেন, কনস্টেবল সাব্বির আহমদ, শাহ জামাল ও সৌরভ কুমার দেব।

সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, দায়িত্বরত নৌ পুলিশের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ২৬ জনকে আসামি করে ছাতক থানায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। আসামিদের গ্রেফতার ও লুট হওয়া মালামাল উদ্ধারে পুলিশ অভিযান চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :