দিরাইয়ে স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানি: ২ মাসেও গ্রেপ্তার হয়নি আসামি

কালনী ভিউকালনী ভিউ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:১১ AM, ২২ জুন ২০২১

দিরাই (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
দিরাইয়ে প্রকাশ্যে দিনদুপুরে এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানি ও লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হলেও ২ মাসেও আসামি কে ধরতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এনিয়ে হতাশা,ভয় আর ক্ষোভ নিয়ে দিন কাটছে ওই স্কুলছাত্রী ও তার পরিবারের।

ওই ছাত্রীর বাবার দায়ের করা মামলার এজহার সূত্রে জানাযায়, গত ২২ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দিরাই থানা পয়েন্টস্থ সেন মার্কেটের একটি দোকানে দিরাই সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রী ঈদের কেনাকাটা করতে কয়েকজন বান্ধবীসহ যায়, এসময় সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য নাজমুল হকের ছেলে অভি (১৮) তার স্পর্শকাতর অঙ্গে জোরপূর্বক স্পর্শ করে, তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন সেখানে জড়ো হয়। খবর পেয়ে অভির চাচাতো ভাই সোহেল মিয়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই ছাত্রী কে ধমক দিয়ে বলে, এ ঘটনা কাউকে জানালে এসিড দিয়ে তোমার মুখ ঝলসে দেওয়া হবে।

ছাত্রীর বাবা হতাশা এবং ক্ষোভের সাথে বলেন,২ মাস আগে বখাটে অভি আমার মেয়ে কে দিনদুপুরে যৌন হয়রানি ও শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করে। আমি দিরাই থানায় বখাটে অভি ও তার সহযোগী সোহেল এর বিরুদ্ধে মামলা করি। এরপর মামলার অগ্রগতির জন্য জেলা পুলিশ সুপার বরাবরও আবেদন করি। দুঃখ জনক হলেও সত্য ২ মাসেও কোনো আসামি ধরতে পারেনি পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছ থেকে আমরা আশানুরূপ সহযোগিতাও পাইনি,বর্তমানে আমরা হতাশ আমরা ভয়ের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দিরাই থানার অফিসার এসআই সজল দত্ত বলেন, সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হবে, আসামীদের গ্রেপ্তার করতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

আপনার মতামত লিখুন :