দুদু মিয়ার হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে দিরাইয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

কালনী ভিউকালনী ভিউ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৩৯ PM, ০৭ মে ২০২১

দিরাই প্রতিনিধিঃ
দিরাই উপজেলার তাড়ল ইউনিয়নের ভাঙ্গাডহর গ্রামের দিনমজুর দুদু মিয়ার হত্যাকরীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার বিকেলে এলাকাবাসীর ব্যানারে দিরাই উপজেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী। মিছিলটি দিরাই বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে দিরাই থানা প্রাঙ্গণে সমাবেশে মিলিত, বিক্ষোভ কারীরা দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ এর কাছে পলাতক হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবি জানান। অফিসার ইনচার্জ তাদের কে সুষ্ঠ বিচারের আশ্বাস প্রদান করেন। দিরাই প্রেসক্লাব ও অনলাইন প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন দিরাই উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি আব্দুল হক, ইউপি সদস্য শেখ ফরিদ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত ১ মে রাতে দিরাই উপজেলার মঙ্গলপুর বিলের থেকে মস্তকবিহীন খন্ড-বিখন্ড লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন সকালে এলাকার একটি পুকুর পাড় থেকে লাশের ক্ষতবিক্ষত মাথা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত লাশ গলে যাওয়ায় তার পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। তবে পুলিশ ও স্থানীয়রা ধারণা করছিলেন লাশ মঙ্গলপুর গ্রামের নিখোঁজ দুদু মিয়ার। উদ্ধারকৃত লাশের পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখে সন্তানরা দুদু মিয়ার লাশ বলে দাবি করেন।

এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার সকালে র‌্যাব-৯ এর একটি বিশেষ দল দিরাই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এক নারী সহ ৬ জনকে আটক করে।

তারা হলেন ইসলামপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাইয়ুম’র স্ত্রী আলবাহার (৩৫), ভাঙ্গাডহর গ্রামের জলধর দাসের ছেলে সত্য রঞ্জন দাস(৫৫), নরোত্তম পুর গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে নাছির উদ্দীন (৩৫), দাউদপুর গ্রামের আব্দুল তোয়াহিতের ছেলে নাজমুল হুসাইন (৪৯), নরোত্তম পুর গ্রামের মুসলিম উল্লাহর ছেলে লুৎফুর রহমান (৩৫) ও ভাঙ্গা ডহর গ্রামের মকবুল আলীর ছেলে আব্দুল মালেক (৩০)।

র‌্যাবের প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দুদু মিয়া হত্যাকান্ডে তাদের জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেন। তারা আরও জানান দুদু মিয়া হত্যার মূলহোতা হলেন দাউদ পুর গ্রামের নাজমুল হুসাইনের ছোট ভাই কবির মিয়া ও তার
সহযোগী ভাঙ্গাডহর গ্রামের দোলন মিয়া।

আপনার মতামত লিখুন :